চাকরি প্রার্থীদের প্রায়ই জানতে চাওয়া প্রশ্ন

চাকরি সন্ধানকারীর প্রায়ই জানতে চাওয়া প্রশ্ন

বিডিজবস.কম লিমিটেড দেশের প্রধান এবং বৃহত্তম ক্যারিয়ার ম্যানেজমেন্ট সাইট। চাকরিপ্রার্থীদের কর্মজীবন পরিচালনার উদ্দেশ্য নিয়ে জুলাই ২০০০ সাল থেকে এ সাইট যাত্রা শুরু করেছে। এছাড়া এই সাইটটি আরও দক্ষতার সাথে নিয়োগকারীদের নিয়োগ প্রক্রিয়া পরিচালনা করতে সহযোগিতা করে এবং এতে সময় ও অর্থ দুটোই সাশ্রয় হয়।

Bdjobs.com-এর অফিসিয়াল ওয়েব পেজ-এ Sign in or Create Account মেন্যু থেকে Create Account- লিংক-এ ক্লিক করে নতুন একাউন্ট করতে পারবেন। একাউন্ট তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় তথ্যগুলো পূরণ করলে ইমেইলে ভেরিফিকেশন লিঙ্ক যাবে যার মাধ্যমে প্রোফাইল এক্টিভেট হবে। এছাড়া, ফেসবুক বা গুগল একাউন্ট এর মাধ্যমেও বিডিজবস একাউন্ট তৈরি করতে পারেন।
কিভাবে বিডিজবস একাউন্ট তৈরি ও এক্টিভেট করবেন তা জানতে নিচের ভিডিও টিউটোরিয়ালে ক্লিক করুন-
বিডিজবস একাউন্ট তৈরি ও এক্টিভেট (জেনারেল ক্যাটাগরি)
বিডিজবস একাউন্ট তৈরি ও এক্টিভেট (স্পেশাল স্কিল্ড ক্যাটাগরি)

বিডিজবস রিজিউমি হল বিডিজবস ফরম পূরণ করার মাধ্যমে যে রিজিউমি তৈরি করা হয়। পাঁচটি ধাপ যেমন- ব্যক্তিগত, শিক্ষা/ প্রশিক্ষণ, অভিজ্ঞতা, অন্যান্য তথ্য(বিশেষত্ব, ভাষাগত দক্ষতা, রেফারেন্স) এবং ছবি পূরণ করার মাধ্যমে এই বিডিজবস রিজিউমি তৈরি করা যায়।

বিডিজবস.কম এ আপনার জীবনবৃত্তান্ত জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া তুলনামূলকভাবে খুবই সহজ। হোম পেজে নতুন অ্যাকাউন্ট তৈরি লিংকে অথবা জীবনবৃত্তান্ত তৈরি (মেনু অপশন) এ ক্লিক করতে হবে। আপনি জীবনবৃত্তান্ত তৈরির ফর্ম দেখতে পাবেন। বিডিজবস আপনকে পরপর পাঁচটি ধাপের মাধ্যমে আপনার জীবনবৃত্তান্ত তৈরিতে নির্দেশনা প্রদান করবে।

জীবনবৃত্তান্ত এডিট করার জন্য নীচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন:

  • আপনি ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন।
  • সফলভাবে সাইন ইন করার পর, জীবনবৃত্তান্ত এডিট অপশনটি ক্লিক করুন।
  • এখন, এডিট করার জন্য জীবনবৃত্তান্তের যে কোন অংশ নির্বাচন করুন।
  • তথ্য পরিবর্তন করার পর তথ্য সংরক্ষণ/ তথ্য আপডেট বাটনে ক্লিক করুন।

না, এটা একদম ফ্রী এবং আপনাকে বিডিজবসে জীবনবৃত্তান্ত জমা দিতে কোন টাকা দিতে হবে না।

পার্সোনালাইজড রিজিউমি হল চাকরিপ্রার্থীদের পিডিএফ বা ওয়ার্ড ফরম্যাটে তৈরিকৃত রিজিউমি। বিডিজবস রিজিউমির পাশাপাশি পার্সোনালাইজড রিজিউমি সিস্টেমে আপলোড করা যায়।

ইউজার আইডি/ পাসওয়ার্ডটি হল আপনার মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে লগইন বা প্রবেশ করার তথ্যাবলী। ইউজার আইডি/ পাসওয়ার্ড এর মাধ্যমে আপনি আপনার অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করে চাকরির প্রয়োজনীয়তা অনুসারে জীবনবৃত্তান্ত এডিট করতে পারবেন।

ইউজার আইডি হারিয়ে/ভুলে গেলে তা উদ্ধার করার প্রক্রিয়া নিম্নরূপ:

  • সাইন ইন অপশনের নিচে "ইউজার আইডি /পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?" লিঙ্কে ক্লিক করুন।
  • একটি নতুন উইন্ডো প্রদর্শিত হবে; যেখানে আপনি কি পুনরুদ্ধার করতে চান (ইউজার আইডি, পাসওয়ার্ড, ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড) তার তিনটি অপশন থাকবে। এখান থেকে ইউজার আইডি সিলেক্ট করে সাবমিট করুন।
  • এবার মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্ট তৈরির সময় দেয়া ইমেইল অ্যাড্রেস অথবা মোবাইল নম্বর টাইপ করে সাবমিট করুন।
  • আপনার নাম এবং ইউজার আইডির একটি অপশন দেখানো হবে। যদি তা সঠিক হয় তাহলে সেটি সিলেক্ট করে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন।
  • তারপর আপনার অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই করতে জন্ম তারিখ লিখে সাবমিট করুন।
  • আপনার ইমেইল অথবা মোবাইল নম্বরে আপনার ইউজার আইডি চলে যাবে।

পাসওয়ার্ড হারিয়ে/ভুলে গেলে তা উদ্ধার করার প্রক্রিয়া নিম্নরূপ:

  • সাইন ইন অপশনের নিচে "ইউজার আইডি /পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?" লিঙ্কে ক্লিক করুন।
  • একটি নতুন উইন্ডো প্রদর্শিত হবে; যেখানে আপনি কি পুনরুদ্ধার করতে চান (ইউজার আইডি, পাসওয়ার্ড, ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড) তার তিনটি অপশন থাকবে। এখান থেকে পাসওয়ার্ড সিলেক্ট করুন এবং ইউজার আইডি লিখে সাবমিট করুন।
  • এবার "কিভাবে পাসওয়ার্ড রিসেট করতে চান?" জানতে চেয়ে কোড পাঠানোর দুটি অপশন থাকবে ইমেইল এবং মোবাইলে এস এম এস। যেকোনো একটি সিলেক্ট করে ইমেইল এড্রেস বা মোবাইল নম্বর লিখুন এবং সাবমিট করুন।
  • আপনার ইমেইল অথবা মোবাইলে পাঠানো কোডটি টাইপ করুন। তারপর নতুন পাসওয়ার্ড দিয়ে কনফার্ম করুন, পাসওয়ার্ড পুনরুদ্ধার হয়ে যাবে।

ইউজার আইডি/পাসওয়ার্ড হারিয়ে/ভুলে গেলে তা উদ্ধার করার প্রক্রিয়া নিম্নরূপ:

  • সাইন ইন অপশনের নিচে "ইউজার আইডি /পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?" লিঙ্কে ক্লিক করুন।
  • একটি নতুন উইন্ডো প্রদর্শিত হবে; যেখানে আপনি কি পুনরুদ্ধার করতে চান (ইউজার আইডি, পাসওয়ার্ড, ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড) তার তিনটি অপশন থাকবে। এখান থেকে ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড সিলেক্ট করে সাবমিট করুন।
  • এবার মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্ট তৈরির সময় দেয়া ইমেইল অ্যাড্রেস অথবা মোবাইল নম্বর টাইপ করে সাবমিট করুন।
  • আপনার নাম এবং ইউজার আইডির একটি অপশন দেখানো হবে, সেটি সিলেক্ট করে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন।
  • তারপর আপনার অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই করতে জন্ম তারিখ লিখে সাবমিট করুন।
  • আপনার ইমেইল বা মোবাইল নম্বরে ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড রিসেটের জন্য একটি কোড পাঠানো হবে।
  • এবার পাঠানো কোডটি টাইপ করুন এবং নতুন পাসওয়ার্ড দিয়ে কনফার্ম করুন।

আপনার ইউজার আইডি পরিবর্তন করতে নিচের ধাপ গুলো অনুসরণ করুনঃ

  • প্রথমে আপনার মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন।
  • এবার অ্যাকাউন্ট সেটিংস অপশন থেকে সেট ইউজার আইডি / ইউজার আইডি পরিবর্তন- এ ক্লিক করুন।
  • এরপর আপনি দুটি অপশন (ইমেইল/মোবাইল) পাবেন ইউজার আইডি পরিবর্তনের জন্য। যেকোনো একটি অপশনে কিল্ক করে কিছু সাধারণ ধাপ অনুসরণ করে আপনার ইউজার আইডি পরিবর্তন করতে পারবেন।

আপনার পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করতে নিম্নের ধাপগুলো অনুসরণ করুন:

  • আপনার মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন।
  • অ্যাকাউন্ট সেটিংসে গিয়ে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন অপশনে ক্লিক করুন।
  • আপনার পুরানো পাসওয়ার্ডটি টাইপ করুন।
  • আপনার নতুন পাসওয়ার্ড টাইপ করুন।
  • নতুন পাসওয়ার্ডটি পুনরায় টাইপ করুন এবং অ্যাকাউন্ট আপডেট বাটনে ক্লিক করুন।

প্রকাশিত চাকরিগুলো দেখতে নীচের ধাপগুলো অনুসরণ করতে হবে:

  • হোম পেজে প্রদত্ত হট জবগুলো সহজেই দেখতে পাবেন। আবার আপনার পছন্দের চাকরি খুঁজতে হোম পেজে "ব্রাউজ ক্যাটাগরিতে" ক্লিক করতে পারেন।
  • চাকরির একটি তালিকা প্রদর্শিত হবে।
  • যেকোনো চাকরির বিস্তারিত দেখতে জব টাইটেলে ক্লিক করুন।

এটি একটি নির্দিষ্ট শব্দ দিয়ে চাকরি অনুসন্ধান করার একটি বিশেষ প্রক্রিয়া। কীওয়ার্ড অনুসন্ধান বক্সের মধ্যে কাঙ্ক্ষিত শব্দ (গুলি) টাইপ করুন (যেমনঃ 'oracle', 'financial analyst' ইত্যাদি) এবং অনুসন্ধান বাটনে ক্লিক করুন। এবার নির্দিষ্ট শব্দ সংশ্লিষ্ট চাকরি (গুলো) প্রদর্শিত হবে।

একটি চাকরিতে আবেদন করতে হলে বিডিজবস.কম ওয়েব সাইটে মাই বিডিজবসে আপনার অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে। কোন চাকরিতে আবেদন করার জন্য নিম্নের ধাপগুলো অনুসরণ করুন:

  • অনলাইনে আবেদন বাটনে ক্লিক করুন।
  • এবার আপনাকে একটি মেসেজ দেখানো হবে যেখানে জানতে চাওয়া হবে আপনি ইন্টারভিউ দিতে ইচ্ছুক কি না। রাজী থাকলে "হ্যাঁ, আমি ইন্টারভিউ দিবো" বাটনে ক্লিক করুন এবং আপনার মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন।
  • তারপর আপনার প্রত্যাশিত বেতন সঠিকভাবে উল্লেখ করুন এবং আবেদন বাটনে ক্লিক করুন।

হ্যাঁ পারবেন, যদি নির্দিষ্ট পদটির জন্য নির্ধারিত সময়সীমা শেষ না হয়ে থাকে এবং নিয়োগকর্তা আপনার রিজিউমি না দেখে থাকেন তবেই আবেদন বাতিল করা যাবে।

  • মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন।
  • অনলাইন আবেদন অপশন থেকে আবেদনকৃত জব লিস্টে যান।
  • যে চাকরির আবেদন বাতিল করতে চান তার প্রত্যাশিত বেতন এর পাশে বাতিল আইকনে ( ) ক্লিক করুন।
  • এবার একটি পপ আপে জানতে চাওয়া হবে আপনি বাতিল করতে নিশ্চিত কি না, "Yes" অপশনে ক্লিক করুন। আপনার আবেদন বাতিল হয়ে যাবে।

বিডিজবস.কম এ নিবন্ধিত নিয়োগকর্তা আপনার জীবনবৃত্তান্ত দেখতে পারবেন যদি না আপনি আপনার মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে থাকা রিজিউমি প্রাইভেসি অপশনটিতে কোন পরিবর্তন করেন।

রিজিউমি প্রাইভেসি এডিট করার ধাপসমূহ নিম্নরূপ:

  • মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন।
  • এবার অ্যাকাউন্ট সেটিংসে গিয়ে রিজিউমি প্রাইভেসি অপশনে ক্লিক করুন।
  • তারপর প্রদত্ত লিস্ট থেকে "নিচের তালিকা থেকে নিয়োগকর্তাকে ব্লক করতে পারেন" ক্ষেত্রটি সিলেক্ট করুন।
  • এখন,বামদিকের লিস্ট থেকে নিয়োগকর্তার নাম সিলেক্ট করুন এবং আপডেট বাটনে ক্লিক করুন।
  • সিলেক্ট করা নিয়োগকর্তা আপনার জীবনবৃত্তান্ত আর দেখতে পারবেন না।

নিয়োগকর্তা আপনার জীবনবৃত্তান্ত দেখলে আপনি যেভাবে জানতে পারবেন:

  • মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন।
  • কার্যবিবরণী অপশনে ক্লিক করুন।
  • জীবনবৃত্তান্ত দেখেছে এরূপ কোম্পানির সংখ্যা এর সাথে সংশ্লিষ্ট নাম্বারে ক্লিক করুন। আপনি এই বিষয়ে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

মোট কতগুলো চাকরিতে আবেদন করেছেন জানতে নিচের ধাপ গুলো অনুসরণ করুন:

  • মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন।
  • কার্যবিবরণী অপশনে ক্লিক করুন।
  • অ্যাপ্লাই অনলাইনে আবেদনের সংখ্যা এর সাথে সংশ্লিষ্ট নাম্বারে ক্লিক করুন। আপনি এই বিষয়ে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

ইতিমধ্যে আবেদিত চাকরিতে প্রত্যাশিত বেতনের পরিমাণ যেভাবে পরিবর্তন করবেন:

  • মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন।
  • কার্যবিবরণী অপশনে ক্লিক করুন।
  • অ্যাপ্লাই অনলাইনে আবেদনের সংখ্যা এর সাথে সংশ্লিষ্ট নাম্বারে ক্লিক করুন।
  • আপনার দেওয়া প্রত্যাশিত বেতন এ ক্লিক করুন। যদি আবেদনের সময়সীমা শেষ হয়ে যায় অথবা নিয়গকর্তা আপনার রিজিউমি দেখে থাকেন তাহলে আপনি এটা করতে পারবেন না।

হ্যাঁ, আপনি অবশ্যই এটা করতে পারেন।

  • মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন।
  • জীবনবৃত্তান্ত ইমেইল অপশনে ক্লিক করুন। অথবা,
  • চাকরির বিস্তারিত বিবরণী পেজে ক্লিক হেয়ার (যদি থাকে) লিঙ্কে ক্লিক করুন।
  • তবে এক্ষেত্রে আপনাকে আবার সাইন ইন করতে হবে (যদি আপনি ইতিমধ্যে সাইন ইন না করে থাকেন)।
  • প্রয়োজনীয় ফিল্ডগুলো পূরণ করুন এবং জীবনবৃত্তান্ত পাঠানো বাটনে ক্লিক করুন।

হ্যাঁ, এটি সম্ভব।

  • প্রথমত মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন।
  • আপনাকে অবশ্যই সঠিক ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড প্রদান করতে হবে।
  • এবার অ্যাকাউন্ট সেটিংসে গিয়ে জীবনবৃত্তান্ত ডিলিট অপশনে ক্লিক করুন।
  • তারপর আপনার ইউজার আইডি, পাসওয়ার্ড এবং ডিলিট করার কারণ লিখে ডিলিট অপশনে ক্লিক করুন।

ইমেইল নোটিফিকেশন হল এমন একটি সার্ভিস যার মাধ্যমে বিডিজবস.কম এর সকল সার্ভিস সম্পর্কে ইমেইলের মাধ্যমে জানানো হয়।

ইমেইল নোটিফিকেশনে কোন অপশন নির্বাচন/এডিট করতে নিচের ধাপ গুলো অনুসরণ করুন:

  • মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন।
  • এবার অ্যাকাউন্ট সেটিংসে গিয়ে ইমেইল নোটিফিকেশন অপশনটি ক্লিক করুন। এখন আপনি যেকোনো কোন সার্ভিস সেট অথবা এডিট করতে পারেন।
  • ফাইনালি সার্ভিস যুক্ত/আপডেট বাটনে ক্লিক করুন।

হ্যাঁ, অবশ্যই করতে পারবেন।

  • প্রথমত মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন।
  • এবার অ্যাকাউন্ট সেটিংসে গিয়ে অ্যাকাউন্ট ডিলিট অপশনে ক্লিক করুন।
  • তারপর সাধারণ কিছু ধাপ অনুসরণ করে আপনার অ্যাকাউন্ট ডিলিট করুন।

ফেভারিট সার্চ নিজের পছন্দের চাকরি খোঁজার একটি অসাধারণ ফিচার। এর মাধ্যমে আপনি এক ক্লিকে বার বার সার্চ করা ক্যাটাগরি গুলো সেভ করে রাখতে পারবেন এবং খুব সহজেই জব খুঁজতে পারবেন। এটি একটি ঝামেলা মুক্ত সার্চ অপশন যা ব্যবহারে আপনাকে বার বার ক্যাটাগরি, লোকেশন, কিওয়ার্ড ইত্যাদি সিলেক্ট করে দিতে হবে না।

ফেভারিট সার্চ অপশনে আপনি সর্বোচ্চ ১০ টি ক্যাটাগরি সেভ করে জব খুঁজতে পারবেন।

হ্যাঁ, আপনি আপনার ফেভারিট সার্চ এডিট করতে পারেবেন। ফেভারিট সার্চ এডিট করতে নিচের স্টেপ গুলো অনুসরণ করুন:

  • প্রথমে আপনার মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন এবং ফেভারিট সার্চ অপশনে যান।
  • আপনার ফেভারিট সার্চের নামের উপর ক্লিক করে জব ডিটেইল থেকে এডিট অপশনে গিয়ে এডিট করতে পারবেন।
  • এছারাও জব লিস্ট থেকেও যেকোনো জব সেভ ফেভারিট অপশনে ক্লিক করে ফেভারিট সার্চে যোগ করতে পারবেন। ডান পাশে একটি ডিলিট বাটন আছে।
  • আপনার ফেভারিট সার্চ লিস্ট থেকে যেকোনো সার্চ সরিয়ে ফেলতে ডিলিট বাটনে ক্লিক করুন।
  • এখন আপনি চাইলে আপনার পছন্দ অনুযায়ী অন্য কোনো ফেভারিট সার্চ যোগ করতে পারেবেন।

হ্যাঁ, আপনি আপনার ফেভারিট সার্চ ডিলিট করতে পারেবেন। ফেভারিট সার্চ ডিলিট করতে নিচের স্টেপ গুলো অনুসরণ করুন:

  • প্রথমে আপনার মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন এবং ফেভারিট সার্চ অপশনে যান।
  • আপনার ফেভারিট সার্চের নামের উপর ক্লিক করে ডান পাশে একটি ডিলিট বাটন আছে।
  • আপনার ফেভারিট সার্চ লিস্ট থেকে যেকোনো সার্চ সরিয়ে ফেলতে ডিলিট বাটনে ক্লিক করুন।
  • এখন আপনি চাইলে আপনার পছন্দ অনুযায়ী অন্য কোনো ফেভারিট সার্চ যোগ করতে পারেবেন।

শর্টলিস্টেড জব এমন একটি ফিচার যার মাধ্যমে আপনি যেকোনো চাকরির সার্কুলার পরে পড়ার জন্য শর্টলিস্ট/ সেভ করে রাখতে পারবেন। আবেদনের শেষ তারিখ কাছাকাছি আসলে সিস্টেম থেকে আপনাকে তা জানানো হবে। এক্ষেত্রে আপনি আবেদন করতে ভুলে গিয়ে থাকলে সাথে সাথে আবেদন করতে পারবেন। বিভিন্ন চাকরির পরিসংখ্যানগত রিপোর্ট সম্পর্কে আপ টু ডেট থাকতে পারবেন।

হ্যাঁ, আপনি শর্টলিস্ট অপশনটি ব্যবহার করে যেকোনো জব সেভ করে রাখতে পারবেন। জব শর্টলিস্ট করতে নিচের স্টেপ গুলো অনুসরণ করুন:

  • আপনার মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন এবং যেকোনো জবের টাইটেলে ক্লিক করুন।
  • তারপর জব ডিটেইল আসলে ডান পাশের প্যানেল থেকে শর্টলিস্ট অপশনে ক্লিক করুন।
  • জবটি শর্টলিস্ট হয়ে যাবে।

হ্যাঁ, অবশ্য্যই পারবেন। কোন কোম্পানি অথবা এমপ্লয়ারদের অনুসরণ করতে আপনার মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করে যেকোনো জব সার্কুলারের জব ডিটেইলের নিচের দিকে ফলো লিখা অপশনে ক্লিক করে আপনি আপনার পছন্দমত কোম্পানিকে অনুসরণ করতে পারবেন এবং সেই কোম্পানি অথবা এমপ্লয়াদের জবের তথ্য সম্পর্কে আপডেটেড থাকতে পারবেন।

আপনি আপনার ফলো অপশন এডিট করতে পারবেন। কোন কোম্পানিকে আনফলো করতে নিচের ধাপ গুলো অনুসরণ করুন:

  • আপনার মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন এবং অনুসরণকৃত নিয়গকর্তা অপশনে যান।
  • এবার অনুসরণকৃত নিয়গকর্তার লিস্ট থেকে কোম্পানির নামের পাশে আনফলো লিখা অপশনে ক্লিক করলে উক্ত কোম্পানি আনফলো হয়ে যাবে।

শর্টলিস্টেড জব চাকরির মেয়াদ শেষ হওয়ার পরেও শর্টলিস্ট করা জব গুলোকে শর্টলিস্ট/ সেভ করে রাখে। আপনি নিজে যতদিন না এগুলোকে ডিলিট করবেন ততদিন এগুলো শর্টলিস্টেড জব হিসেবেই থেকে যাবে।

এটি একটি কম্পিউটার এডাপটিভ টেস্ট যার অসাধারণ কিছু ফিচার আছে।

  • টেস্টে একটি স্ট্যান্ডার্ড প্রশ্নপত্র এবং বিস্তারিত রিপোর্ট দেয়া হয় যা বিভিন্ন যোগ্যতা গুলোকে আরও সবল করতে সহায়তা করে।
  • এই টেস্টে একটি সফট স্কিল মডিউল আছে যা ক্যান্ডিডেটদের অজানা কিছু সফট স্কিল গুলো জানতে সহায়তা করবে।
  • এটি একটি স্ট্যান্ডার্ড টেস্ট যা নিয়োগ প্রক্রিয়ায় পরের ধাপে এগিয়ে নেয় এবং ইন্টার্ভিউ কল পাওয়ার সুযোগ বাড়িয়ে দেয়।
  • বিস্তারিত জানতে এমপ্লয়াবিলিটি টেস্ট ইউজার গাইড বা এমপ্লয়াবিলিটি টেস্ট ভিডিও দেখুন।

এমপ্লয়াবিলিটি টেস্টের শিডিউল বুকিং করতে নিচের ধাপ গুলো অনুসরণ করুন:

  • আপনার মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করুন এবং এমপ্লয়াবিলিটি সার্টিফিকেশন অপশনে যান।
  • এবার শিডিউল বুকিং- এ ক্লিক করুন এবং ক্যাটাগরি ও টেস্টের নাম থেকে একটি ক্যাটাগরি সিলেক্ট করে কন্টিনিউ বাটনে ক্লিক করুন।
  • প্রদত্ত লিস্ট থেকে আপনার সুবিধামত টেস্টের তারিখ এবং স্থান দেখে ডান পাশের বুক করুন বাটনে ক্লিক করুন।
  • আপনার এমপ্লয়াবিলিটি টেস্টের শিডিউল বুকিং সম্পন্ন হয়ে যাবে এবং আপনি চাইলে পরিবর্তন বাটনে ক্লিক করে এটি পরিবর্তনও করতে পারবেন।

ইন্টারভিউ ইনভাইটেশন মাইবিডিজবসের একটি অসাধারণ ফিচার, যা এমপ্লয়ার এবং চাকরিপ্রার্থীদের মাঝে একটি ব্রিজের মত কাজ করে। এর মাধ্যমে নিয়োগকর্তারা চাকরিতে আবেদনকারীদের ইন্টারভিউর জন্য ইনভাইট করতে পারবেন, এবং আবেদনকারীরা ইন্টারভিউ সম্পর্কে জানতে পারবেন ও প্রয়োজনে নিয়োগকর্তাদের সাথে সিস্টেমের মাধ্যমে যোগাযোগও করতে পারবেন।

মাইবিডিজবসের ওয়েব এবং অ্যাপে বিভিন্ন অপশন থেকে ইন্টারভিউ ইনভাইটেশনের তথ্য পাওয়া যায়। অপশন গুলো হচ্ছে -

  • মাইবিডিজবসের হোম পেজে বেল আইকনে নোটিফিকেশনে
  • মাইবিডিজবসের মেইন মেনুতে অনলাইন আবেদন থেকে আপনি ইন্টারভিউ ইনভাইটেশন বাটনে ক্লিক করে (ওয়েব)।
  • মাইবিডিজবসের অ্যাপসে "এপ্লাইড জবস" থেকে আপনি ইন্টারভিউ ইনভাইটেশন বাটনে ক্লিক করে (অ্যাপ)।
  • এছাড়াও অ্যাপ ব্যবহার করে মাইবিডিজবসে সাইন ইন করলে নতুন ইন্টারভিউ ইনভাইটেশন আসলে একটি পপ আপ পাবেন।

ইন্টারভিউ ইনভাইটেশনে আপনি যে কাজ গুলো করতে পারবেন তা হল -

  • আপনি সহজেই সিস্টেম ব্যবহার করে নিয়োগকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন।
  • নির্ধারিত সময়ে ইন্টারভিউয়ে অংশ গ্রহণ করতে চাইলে "হ্যাঁ" অপশন ব্যবহার করে তা নিশ্চিত করতে পারবেন।
  • আপনি যদি ইন্টারভিউয়ে অংশ গ্রহণ করতে না চান তবে "না" অপশন ব্যবহার করে তা রিজেক্ট করতে পারবেন।
  • এছাড়াও নিয়োগকর্তা যদি "রিশিডিউল" অপশনটি দিয়ে থাকেন তাহলে তা ব্যবহার করে ইন্টারভিউর তারিখ এবং সময় পরিবর্তনের জন্য অনুরোধ করতে পারবেন।

ইন্টারভিউ ইনভাইটেশনের সুবিধা সমূহ -

  • এটি নিয়োগকর্তা এবং চাকরিপ্রার্থীর মাঝে যোগাযোগ ব্যবস্থাকে আরও ভাল করে।
  • চাকরিপ্রার্থীরা ইন্টারভিউ সম্পর্কে তাৎক্ষণিক ভাবে তথ্য পাবে।
  • চাকরিপ্রার্থীরা ইন্টারভিউর তারিখ পরিবর্তনের জন্য অনুরোধ করতে পারবেন যদি নিয়োগকর্তা ইন্টারভিউ রিশিডিউল অপশনটি দিয়ে থাকনে।

না, তারিখ ঠিক পরিবর্তন করা যায় না। তবে, নিয়োগকর্তা যদি ইন্টারভিউ রিসিডিউল অপশনটি দিয়ে থাকেন তাহলে ইন্টারভিউর তারিখ পরিবর্তন করার জন্য অনুরোধ করা যায়। এক্ষেত্রে অবশ্যই কারণ জানিয়ে অনুরোধ করতে হবে।

ইন্টারভিউ ইনভাইটেশনে রিসিডিউলিং রিকোয়েস্ট একটি বিশেষ অংশ। কোন নিয়োগকর্তা যদি রিসিডিউল অপশনটি দিয়ে থাকেন তাহলে আপনি আপনার সুবিধা অনুযায়ী ইন্টারভিউ তারিখ ও সময় পরিবর্তনের জন্য অনুরোধ করতে পারবেন। এক্ষেত্রে রিসিডিউল অনুরোধের জন্য আপনাকে সঠিক কারণ দিতে হবে। নিয়োগকর্তা চাইলে আপনার অনুরোধ গ্রহণ অথবা প্রত্যাখ্যান করতে পারেন।

নিয়োগকর্তা যদি ইন্টারভিউ রিসিডিউল করার অপশনটি দিয়ে থাকেন তাহলে ইন্টারভিউ ইনভাইটেশনে তা দেখতে পাবেন এবং যথাযথ কারণ জানিয়ে রিশিডিউল অপশন ব্যবহার করে ইন্টারভিউর তারিখ এবং সময় পরিবর্তন করার অনুরোধ করতে পারবেন।

নিয়োগকর্তারা মূলত দুই রকম পদ্ধতিতে বিভিন্ন নোটিফিকেশন পাঠিয়ে থাকেন। পদ্ধতি গুলো -

  • সিস্টেম নোটিফিকেশন
  • ইমেইল

এছাড়াও নিয়োগকর্তা চাইলে এসএমএস দিতে পারেন।

“ভিডিও ইন্টারভিউ” ফিচারের মাধ্যমে নিয়োগকর্তা আবেদনকারীকে নির্দিষ্ট কিছু প্রশ্ন করতে পারেন এবং যার উত্তর গুলো আবেদনকারী ভিডিও রেকর্ডিং এর মাধ্যমে উপস্থাপন করে রেকর্ডটি নিয়োগকর্তার কাছে সাবমিট করতে পারেন। মূলত এটি একটি ইন্টারভিউ যেখানে আবেদনকারী প্রশ্নগুলির উত্তর দেওয়ার সময় নিয়োগকর্তা উপস্থিত থাকে না। আবেদনকারীরা মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে সহজ প্রক্রিয়ায় রেকর্ড করে নিয়োগকর্তাকে ভিডিওটি জমা দিতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন ভিডিও ইন্টারভিউ ইউজার গাইড অথবা ভিডিও ইন্টারভিউ ভিডিও গাইডদেখুন।

নিয়োগকর্তারা চাকরিতে ভিডিও ইন্টারভিউ পাঠালে, আপনি নিচের অপশনগুলোতে পাবেন:

  • মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইনের মাধ্যমে
  • ইমেইলের মাধ্যমে
  • এসএমএস নোটিফিকেশন

আপনার মাই বিডিজবস প্যানেল থেকে ভিডিও ইন্টারভিউ ক্লিক করলে ভিডিও রেকর্ড শুরু করা যায়। ইন্টারভিউর জন্য কিছু গাইডলাইন আছে সেগুলো অনুসরণ করে ভিডিও রেকর্ড করুন। বিস্তারিত জানতে ইউজার গাইড অথবা ভিডিও গাইড দেখুন।

ভিডিও রেকর্ড এর জন্য প্রয়োজন-

  • ইন্টারনেট সংযোগ
  • ল্যাপটপ অথবা ডেস্কটপ, ওয়েবক্যামের ও মাইক্রোফোন অপশনসহ
  • মোবাইল ডিভাইস

আপনি যদি ভিডিও ইন্টারভিউ এর জন্য নির্বাচিত হন তাহলে মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্ট এ সাইন ইন করার পরে মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন। এক্ষেত্রে "Start recording" ক্লিক করার আপনি ভিডিও ইন্টারভিউ রেকর্ড করা শুরু করবেন যা পরবর্তীতে শেষ করে সাবমিট করতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে ইউজার গাইড অথবা ভিডিও গাইড দেখুন।

হ্যাঁ, আপনি ভিডিও রেকর্ডিং-এর আগেই প্রশ্নগুলো দেখতে পারবেন।

নিয়োগকর্তা মো্ট ৫টি প্রশ্ন দিতে পারবেন এবং এই ৫টি প্রশ্নের সর্বোচ্চ সময় ৩ মিনিট ( ১৮০ সেকেন্ড ) হতে পারে।

আপনি রেকর্ডিং শুরু করা থেকে সবগুলো ইন্টার্ভিউয়ের উত্তর রেকর্ড সম্পন্ন করে, সাবমিট করার জন্য মোট ১ ঘণ্টা সময় পাবেন। এক্ষেত্রে প্রতিটি প্রশ্নের উত্তর এর জন্য নিয়োগকর্তা/এমপ্লয়ার আলাদাভাবে সময়সীমা নির্ধারণ করে দিবেন এবং এই সময়ের মাঝেই আবেদনকারীকে রেকর্ডিং সম্পন্ন করতে হবে। সবগুলো প্রশ্নের উত্তর এর জন্য সর্বমোট ৩ মিনিট বা ১৮০ সেকেন্ড সময় দেয়া হবে।

না, আপনি চাইলে আপনার পছন্দ অনুযায়ী প্রশ্ন এর ভিডিও রেকর্ড আগে বা পরে করতে পারেন। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের মাঝেই সবগুলো প্রশ্নের উত্তর রেকর্ডিং শেষ করতে হবে।

হ্যাঁ, প্রতিটি ভিডিও রেকর্ডিং শেষ করে আপনি রিভিউ করে নিতে পারবেন।

পুরো রেকর্ডিং প্রসেস এর জন্য মোট ১ ঘন্টা সময় পাবেন। ১ ঘণ্টার মাঝে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন হলে পূর্বে রেকর্ডকৃত উত্তরগুলো আবার নতুন করে রেকর্ড করতে হবে না, শুধুমাত্র যেগুলো বাকি ছিল সেগুলো রেকর্ড করবেন। কিন্তু ১ ঘন্টার মধ্যে যদি ইন্টারনেট সংযোগ না আসে তাহলে শুধুমাত্র যেগুলো রেকর্ড করা হয়েছিল শুধুমাত্র সেগুলোই সাবমিট করতে পারবেন। কিন্তু রেকর্ডিং শুরু করার সময় থেকে ১ ঘন্টার মধ্যে ইন্টারনেট না আসলে আবার "Attempt" নিতে পারবেন।

না, একবার সাবমিট করা হয়ে গেলে পুনরায় রেকর্ড এবং সাবমিট এর সুযোগ থাকছে না।

হ্যাঁ, প্রতিটি ভিডিও রেকর্ডিং এর মাঝে আপনি চাইলে বিরতি নিতে পারবেন।

আপনার উত্তরটি সময়ের আগেই শেষ হয়ে গেলে পরবর্তী প্রশ্নটি পেতে "Done" বোতামটি ক্লিক করতে পারেন। সময় শেষ হওয়ার আগেই আপনার ভিডিও ইন্টারভিউটি সম্পন্ন হয়ে গেলে জমা দিন, নিয়োগকর্তাকে অপেক্ষা না করিয়ে রেখে।

না পারবেন না। বিডিজবস সিস্টেম এর মাধ্যমেই আপনাকে প্রশ্নের উত্তর গুলো রেকর্ড করতে সিস্টেমে আপলোড করতে হবে।

যেই সকল ব্রাউজার ভিডিও ইন্টারভিউ ফিচার টি সাপোর্ট করে তার নিচে দেওয়া হল ঃ

  • Desktop PC -
    • Microsoft Edge 12+[24]
    • Google Chrome 28+
    • Mozilla Firefox 22+[25]
    • Safari 11+[26]
    • Opera 18+[27]
    • Vivaldi 1.9+
  • Android -
    • Google Chrome 28+ (enabled by default since 29)
    • Mozilla Firefox 24+[28]
    • Opera Mobile 12+
  • Chrome OS
  • Firefox OS
  • BlackBerry 10
  • IOS -
    • MobileSafari/WebKit (iOS 11+)
  • Tizen 3.0

এসএমএস জব অ্যালার্ট বিডিজবসের একটি নতুন সার্ভিস যা এস এম এস -এর মাধ্যমে তাৎক্ষণিকভাবে চাকরিপ্রার্থীদের মোবাইল ফোনে তাদের পছন্দের নিয়োগকর্তা , সার্চ এবং ম্যাচড জবসের সাথে সম্পর্কিত চাকরির অ্যালার্ট পাঠিয়ে দেবে।

ফলোড এমপ্লয়ার, ফেভারিট সার্চ এর অন্তর্ভুক্ত কোম্পানি এবং সেভড সার্চ অনুযায়ী এসএমএস জব এলার্ট মোবাইল ফোন এ সিস্টেম থেকে পাঠানো করা হবে। ফলোড এমপ্লয়ার, ফেভারিট সার্চ এর লিস্টে যদি কোনো কোম্পানি ফলো বা সার্চ সেভ না থাকে তাহলে আপনার শিবির তথ্যের সাথে মাইল রেখে ম্যাচড জব এর নোটিফিকেশন পাঠানো হবে।

তাৎক্ষণিকভাবে চাকরির অ্যালার্ট পেতে ফলোড এমপ্লয়ার, ফেভারিট সার্চ এবং ম্যাচড জবস ফিচারগুলোর মাই বিডিজবস এর অ্যাকাউন্ট সেটিংস থেকে সিলেক্ট করে এস এম এস জব অ্যালার্ট চালু করতে পারবেন। যদি আপনি এদের যেকোন একটি বাছাই না করেন তাহলে ডিফল্ট ম্যাচড জবসের নোটিফিকেশন পাবেন।

হ্যাঁ। আপনি যে কোন সময় এসএমএস সেটিংস থেকে ফিচারটি অন/অফ করতে পারবেন। এছাড়াও এসএমএস জব অ্যালার্টের জন্য আপনার যেসকল অনুসরণকৃত নিয়োগকর্তা অথবা ফেভারিট সার্চ সাবস্ক্রাইবড আছে, তাদেরকে আলাদা আলাদাভাবে আপনার আনসাবস্ক্রাইব করতে হবে।

না। এটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে রিনিউ হয় না। ক্রয়কৃত এসএমএস শেষ হবার পর আপনাকে আবার নতুন করে সার্ভিসটি কিনতে হবে।

হ্যাঁ। ফ্রি ২০ এস এম এস এর মেয়াদকাল ২মাস। ১০০ এস এম এস এর মেয়াদকাল আনলিমিটেড দিন।

কোনও প্রকার প্রশ্ন অথবা অভিযোগ থাকলে কিংবা এই ফিচারটি সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে 16479 নম্বরে কল করুন।

হ্যাঁ, ফলোড এমপ্লয়ার বা ফেভারিট সার্চ -এদের যেকোন একটি সাবস্ক্রাইব করা না থাকলেও জব অ্যালার্ট পাওয়া সম্ভব। এক্ষেত্রে আপনি ম্যাচড জব অনুযায়ী নোটিফিকেশন পাবেন।

বিডিজবস ফরম্যাটের সিভির ইনফরমেশন গুলোর সাথে মিল রেখেই ম্যাচড জব সিস্টেম থেকে পাঠানো হবে।

প্রাসঙ্গিক ম্যাচড জব পেতে আপনার সিভির তথ্য গুলো আপডেটেড রাখুন।

লাইভ ইন্টারভিউ বিডিজবস এর অত্যাধুনিক এবং যুগোপযোগী একটি ফিচার যার মাধ্যমে চাকরিপ্রার্থী এবং নিয়োগকর্তা নিজ নিজ লোকেশন থেকে সরাসরি একে অপরের সাথে যুক্ত হয়ে ইন্টারভিউ সম্পন্ন করতে পারবেন। মূলত এটি একটি অনলাইন ইন্টারভিউ যা সম্পূর্ণভাবে বিডিজবসের সিস্টেমের মাধ্যমে সম্পন্ন করা যাবে। বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন লাইভ ইন্টারভিউ ইউজার গাইড অথবা লাইভ ইন্টারভিউ ভিডিও গাইড দেখুন।

নিয়োগকর্তারা চাকরিতে লাইভ ইন্টারভিউ পাঠালে, আপনি নিচের অপশনগুলোর মাধ্যমে জানতে পারবেন:

  • মাই বিডিজবস অ্যাকাউন্টে সাইন ইনের মাধ্যমে
  • ইমেইলের মাধ্যমে
  • এসএমএস নোটিফিকেশন এর মাধ্যমে

আপনি মাইবিডিজবস এর ইন্টারভিউ ইনভাইটেশন প্যানেল এ নির্দিষ্ট তারিখের নির্দিষ্ট সময়ে Join Live Interview এ ক্লিক করে লাইভ ইন্টারভিউ শুরু করতে পারেন। এছাড়াও আপনি একটি পপ আপ নোটিফিকেশন পাবেন যেটিতে ক্লিক করেই লাইভ ইন্টারভিউ শুরু করতে পারবেন।

লাইভ ইন্টারভিউ এর জন্য প্রয়োজন-

  • ইন্টারনেট সংযোগ
  • ল্যাপটপ অথবা
  • ডেস্কটপ, ওয়েবক্যামের ও মাইক্রোফোন অপশনসহ

না, আপনি পারবেন না। লাইভ ইন্টারভিউতে অংশগ্রহন করতে হলে অবশ্যই আপনার কম্পিউটার, মাইক্রোফোন এবং স্পিকার সঠিকভাবে কাজ করতে হবে।

আপনি নির্দিষ্ট সময়ের মাঝে ইন্টারনেট সংযোগ ফিরে পেলে পুনরায় ইন্টারভিউতে জয়েন করতে পারবেন।

না, আপনি রেকর্ড করতে পারবেন না, এটি একটি ফেস টু ফেস ইন্টারভিউ।

এটি একটি ইন্টারভিউ যেটি অনলাইনে সম্পন্ন করা হবে। সুতরাং অবশ্যই ফরমাল পোশাক পরিধান করা উচিৎ।

না, কোন নির্দিষ্ট সময়সীমা নেই। এটি নিয়োগকর্তার ইচ্ছার উপর নির্ভর করবে।

ভিডিও রিজিউমি একটি সংক্ষিপ্ত ভিডিও যা বিডিজবস রিজিউমির সাথে জমা দেওয়া হয় এবং যার মাধ্যমে নিয়োগকর্তার কাছে নিজেকে উপস্থাপন করা যায়। ভিডিও রিজিউমির মাধ্যমে খুব সহজেই আপনি আপনার দক্ষতা অথবা অভিজ্ঞতা হাইলাইট করে একজন যোগ্য প্রার্থী হিসেবে উপস্থাপন করতে সক্ষম হবেন। বিস্তারিত জানতে ভিডিও রিজিউমি ইউজার গাইড অথবা ভিডিও রিজিউমি ভিডিও গাইড দেখুন।

ভিডিও রিজিউমির সুবিধাগুলো হল-

  • ব্যক্তিত্বকে সঠিকভাবে তুলে ধরা যায়।
  • স্বল্প সময়ে কম প্রচেষ্টায় আপনার স্কিলগুলোকে তুলে ধরা যায়।
  • আপনার প্রযুক্তিগত দক্ষতা তুলে ধরতে সাহায্য করে।
  • ভিডিও রিজিউমির মাধ্যমে নিজেকে ভিজ্যুয়ালি রিপ্রেজেন্ট করা যায় যা ট্র্যাডিশনাল রিজিউমিতে সম্ভব নয়।
  • আপনি কতটুকু প্রেজেন্টেবল তা ভিডিও রিজিউমির মাধ্যমে প্রকাশ করা যায়।
  • কমিউনিকেশন স্কিল, ল্যাংগুয়েজ স্কিল উপস্থাপনের মাধ্যমে নিয়োগকর্তার কাছে ইউনিক হিসেবে তুলে ধরা যায়।

মাইবিডিজবস প্যানেলের "ম্যানেজ রিজিউমি" অপশন থেকে "ভিডিও রিজিউমি" সিলেক্ট করে রিজিউমি তৈরি করতে পারবেন। এছাড়া বিডিজবস অ্যাপের মাধ্যমেও ভিডিও রিজিউমি তৈরি করা যাবে। ভিডিও রিজিউমি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ইউজার গাইড অথবা ভিডিও গাইড দেখুন।

ভিডিও রিজিউমি রেকর্ড করতে যা যা প্রয়োজন-

  • ইন্টারনেট কানেকশন
  • ওয়েবক্যাম এবং মাইক্রোফোন সমর্থিত ল্যাপটপ অথবা ডেস্কটপ
  • এন্ড্রয়েড মোবাইল
  • হ্যাঁ, ভিডিও রিজিউমি রেকর্ডের আগেই আপনি প্রশ্নগুলো দেখতে পারবেন।

    হ্যাঁ, রেকর্ডেড ভিডিও পছন্দ না হলে আপনি পুনরায় ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন।

    না, ভিডিও রিজিউমি ধারাবাহিকভাবে রেকর্ড করা আবশ্যক না। আপনি প্রায়োরিটি অনুযায়ী উত্তর রেকর্ড করতে পারবেন।

    ভিডিও রিজিউমি নিয়োগকর্তাকে আকৃষ্ট করার একটি সেরা মাধ্যম হতে পারে যদি আপনি সংক্ষিপ্ত ও আকর্ষণীয়ভাবে তা উপস্থাপন করতে পারেন। আপনার মেধা, দক্ষতাকে তুলে ধরুন এবং আপনি কেন এই জবের জন্য যোগ্য তা আত্মবিশ্বাসের সাথে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে উপস্থাপন করুন। সর্বোপরি বলা যায়, প্রযুক্তির মাধ্যমে আই ক্যাচিং কন্টেন্ট তৈরি করে আপনার নিয়োগকর্তাকে ইম্প্রেস করুন।

    নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভিডিও রেকর্ডিং সম্পূর্ণ না হলে আপনি যতটুকু উত্তর করেছেন ততটুকুই অটোমেটিক্যালি সিস্টেমে সেভ হয়ে যাবে। আপনি যেকোন সময় উত্তরটি পুনরায় রেকর্ড করতে পারবেন।

    হ্যাঁ, আপনি যেকোন সময় ভিডিও রিজিউমি আপডেট করতে পারবেন।

    "কোম্পানি ভিউ" বলতে ভিডিওটি মোট কতবার কোম্পানি কর্তৃক ভিউ হয়েছে সেই সংখ্যা বোঝানো হয়েছে।

    "মোট কতবার দেখেছে" বলতে ভিডিওটি নিয়োগকর্তা কর্তৃক মোট কতবার ভিউ হয়েছে সেই সংখ্যা বোঝানো হয়েছে।

    "রেটিংস" এর মাধ্যমে আপনার ভিডিও রিজিউমির মূল্যায়ন করা যায়। ফলে আপনি ভবিষ্যতে আপনার ভুল-ত্রুটিগুলো সংশোধন করতে সচেষ্ট হবেন।

    ভিডিও রিজিউমি রেকর্ডিং এর সময় ফরমাল পোশাক পড়ুন যাতে আপনার উপর নিয়োগকর্তার ভালো একটি ইম্প্রেশন তৈরি হয়।

    রেকর্ডিং এর সময় উত্তর অসম্পূর্ণ থাকা অবস্থায় ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন হলে আপনাকে পুনরায় ভিডিও রেকর্ড করতে হবে। কিন্তু সেই সময়ে যদি উত্তর সম্পূর্ণ হয়ে থাকে তাহলে তা অটোমেটিক্যালি সিস্টেমে সেভ হয়ে যাবে।

    হ্যাঁ, আপনি রেকর্ডেড ভিডিও ডিলিট করতে পারেন এবং চাইলে যেকোন সময় পুনরায় রেকর্ড করতে পারবেন।

    ভিডিও রিজিউমি রেকর্ডিং এর জন্য মোট সময়সীমা ৩ মিনিট অথবা ১৮০ সেকেন্ড।

    ভিডিও রিজিউমি নিয়োগকর্তাকে দেখাতে হলে কমপক্ষে ৩টি উত্তর রেকর্ড করতে হবে। এছাড়া, ভিডিও দেখানোর জন্য "নিয়োগকর্তাকে দেখাতে চান" অপশন এনাবেল করতে হবে।

    ভিডিও ইন্টারভিউ একটি প্রি-রেকর্ডেড ইন্টারভিউ যেখানে চাকরিপ্রার্থী নিয়োগকর্তা কর্তৃক নির্ধারিত প্রশ্নের উত্তর রেকর্ড করে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে জমা দেন। অপরদিকে, ভিডিও রিজিউমি একটি সংক্ষিপ্ত ভিডিও যার মাধ্যমে চাকরিপ্রার্থী তাদের যোগ্যতার পাশাপাশি যোগাযোগ দক্ষতা, উপস্থাপনের দক্ষতা তুলে ধরতে পারেন যা ট্র্যাডিশনাল রিজিউমিতে সম্ভব নয়।